ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফুট ওভারব্রীজে অনীহায়!ঝুঁকি নিয়ে পারাপার

Posted on by

মো.নাজিম উদ্দিন ভূইয়া
কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ ব্যস্ততম ঢাকা-চট্টগ্রা মমহাসড়ককে ফোর লেনেরূপান্তরের পাশাপাশি বিভিন্ন স্টেশন এলাকাসহ জন গুরুত্বপূর্ণ স্থানেনির্মিত ফুটওভারব্রীজ গুলোর অধিকাংশই যথাযথ ব্যবহার হচ্ছেনা। ফুটওভারব্রীজ ব্যবহার না করে ঝুঁকিনিয়ে পারাপার করছে হাজার হাজার পথচারী।প্রায় প্রতিনিয়তই ঘটছে দুর্ঘটনা, বাড়ছে যানজট।মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি টোলপ্লাজা থেকে চৌদ্দগ্রামের নানকড়া পর্যন্ত ৯৯ কিলোমিটার এলাকার বিভিন্ন স্টেশন ও জন গুরুত্বপূর্ণ  স্থানে ১৪টি ফুটওভারব্রীজ নির্মিত হলেও শুরু থেকে সেগুলে ব্যবহারে পথচারীদের অনিহা বিরাজ করছে।পথচারীরা ফুটওভারব্রীজ ব্যবহার না করে কেন ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পারাপার হচ্ছে এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে মহাসড়কের পদুয়ার বাজার,ময়নামতি,চান্দিনা, মাধাইয়া, ইলিয়টগঞ্জ ও গৌরীপুর এলাকার ফুটওভারব্রীজ গুলো ঘুরে দেখা গেছে, ফুটওভারব্রীজের সন্নিকটে লোডিভাইডার (নিচুডিভাইডার), মিডিয়াম গ্যাপ এবং হাই ডিভাইডারের উপরে কাঁটা তাঁরের বেড়ানা থাকায় ফুটওভারব্রিজ গুলো ব্যবহার করছে না পথচারীরা।ফুটওভারব্রীজের ৫০-১শ ফুটের মধ্যে লোডিভাইডার থাকায় ২০ ফুট উচ্চতার ফুট ওভারব্রীজের ৮০ফুট সিঁড়ি ব্যবহার করতে অনিহা-ই বড়কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।পদুয়ার বাজার এলাকার স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, ‘এখানে চৌ-রাস্তার মোড়। ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহার একান্ত জরুরী। কিন্তু পথচারীরা পারত পক্ষে ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহার করছেনা। ফুটওভারব্রীজ থেকে ঢাকা মুখী হাইডিভাইডার মাত্র ৫০-৬০ ফুট, তারপর লোডডিভাইডার থাকায় পথচারীরা কষ্ট করে ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহার করছেনা। ময়নামতি সেনানিবাস এলাকায় রয়েছে ত্রি-মুখীমহা সড়ক। গুরুত্বপূর্ণ ওই স্থানে নির্মিত ফুট ওভারব্রিজ থেকে মাত্র ১০-১৫ ফুট দূরত্বে রয়েছে মিডিয়াম গ্যাপ। যার ফলে ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহার হয় না বলেই চলে। মহাসড়কের চান্দিনা-বাগুরবাস স্টেশন এলাকায় ফুট ওভারব্রীজের মাত্র ৫০ ফুট সন্নিকটে নিচু ডিভাইডার থাকায় প্রতিদিন এক শতাংশ পথচারীও ওই ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহার হচ্ছেনা। আর যাত্রীদের ফুটওভারব্রীজ ব্যবহার করতে পুলিশ প্রায়ই অভিযান চালাতে দেখা গেলেওতা ওই অভিযান পর্যন্তই সীমাবদ্ধ থাকে।হাইওয়ে ও জেলা পুলিশের একাধিক কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ কালে তারা জানান,যাত্রীরা ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পারাপার হতে গিয়ে অনেক দুর্ঘটনা ঘটছে। আমরা অনেক চেষ্টা করছি ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহারে। কিন্তু কিছুতেই ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহার অভ্যাসে পরিণত করতে পারছিনা।

Leave a Reply

More News from কুমিল্লা

More News

Developed by: TechLoge

x