ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে তীব্র যানজট; চরম দুর্ভোগ

Posted on by

কুমিল্লা টিভি নিউজঃ কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার মেঘনা-গোমতী সেতু এলাকা থেকে আমিরাবাদ পর্যন্ত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ১০ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি চলছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকা পড়ে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) কামরুল হাসান বলেন, শনিবার রাত ১০টা থেকে মহাসড়কে অতিরিক্ত ও এলোপাতাড়ি যানবাহন চলাচলের কারণে এ যানজটের সৃষ্টি। কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী সিল্ক লাইন পরিবহনের বাসের চালক নুরুল আলম আজ সকাল সাড়ে আটটায় মহাসড়কের দাউদকান্দির শহীদনগরে বলেন, ‘সকাল ছয়টায় দাউদকান্দির আমিরাবাদে এসে যানজটে আটকা পড়ে চার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে আড়াই ঘণ্টা লেগেছে। কখন ঢাকায় পৌঁছতে পারব জানা নেই।’

যানজটে আটকে অনেকেই পড়েছেন বিপাকে। নির্দিষ্ট সময়ে না পৌঁছাতে পারলে ব্যবসায়িক ক্ষতির কথা বলেছেন ঢাকার ব্যবসায়ী কুমিল্লার সেনানিবাস এলাকার ময়নাল হোসেন। তিনি বলেন, ‘একটানা আড়াই ঘণ্টা যানজটে আটকে আছি। বেলা ১১টায় ঢাকায় পৌঁছতে না পরলে দোকান বন্ধ থাকবে, মালিক হিসেবে দোকানের চাবি আমার কাছে। ঠিক সময়ে দোকান খুলতে না পারলে দোকানের অন্যান্য কর্মচারীরা ফিরে যাবে।’

অনেক পণ্যবাহী যানবাহন আটকে আছে মহাসড়কে। বিপদ তাদেরও। এমন একজন কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার নবাবপুরের পিকআপচালক আবদুল আহাদ। তিনি বলেন, নরসিংদী থেকে পোলট্রি মুরগি নিয়ে রওনা দিয়ে রাত আটটায় ঢাকার কাঁচপুরে যানজটে আটকা পড়ি। সকাল আটটায় দাউদকান্দির গৌরীপুরে পৌঁছাই। এক ঘণ্টার পথ অতিক্রম করতে সময় লেগেছে ১২ ঘণ্টা। নির্দিষ্ট সময়ে পৌঁছাতে না পারায় গাড়িতে ২০টি মুরগি মারা গেছে।

কুমিল্লা থেকে দাউদকান্দিগামী পাপিয়া পরিবহনের বাসের চালক সোহাগ মিয়া বলেন, তীব্র যানজটের কারণে এক কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে প্রতি এক ঘণ্টা সময় লেগেছে।

দাউদকান্দি হাইওয়ে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করতে হাইওয়ে পুলিশ রাত-দিন চেষ্টা চালাচ্ছে।

Leave a Reply

More News from কুমিল্লা

More News

Developed by: TechLoge

x